পোশাকের নকশা নিজেই করি : সাবিলা নূর

ঈদ এলে এখনো মিস করেন ছেলেবেলা৷ এই সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সাবিলা নূরের কাছে সেই সময়ের ঈদ সত্যিই অনেক আনন্দের ছিল৷ ‘এখন ঈদের আগের সময়টায় কাজের চাপ এত বেড়ে যায় যে ঈদের প্রস্তুতিও নিতে পারি না।’ সাবিলা নূরের সঙ্গে যখন কথা হচ্ছিল তখনো তিনি ব্যস্ত শুটিংয়ে৷ ঈদের এক দিন আগে পর্যন্ত এমন ব্যস্ততাতেই কাটবে সময়৷
সাবিলার নানাবাড়ি ও দাদাবাড়ি দুটোই চট্টগ্রামে৷ ছোটবেলায় পরিবারের সবাই মিলে চলে যেতেন সেখানে৷ শুধু ঈদের দিনই নয়, এরপরের ছয় দিন পর্যন্ত চলত ঈদ উদ্যাপন। এখন অবশ্য ঢাকাতেই ঈদ করেন৷ চাঁদরাতে হাতে কোনো কাজ রাখেন না৷ রাতের বেলায় সব বন্ধু মিলে ঘুরে বেড়ান রাজধানীর বিভিন্ন শপিং মলে৷ পোশাক কেনাকাটা অবশ্য আগেই হয়ে যায়৷ এদিকে হাতে মেহেদি লাগানো একেবারেই পছন্দ নয় সাবিলার৷ তবে ঈদের আগের রাতে বাড়ির অন্যরা যখন হাতে মেহেদি লাগায়, তা দেখতে খুব ভালো লাগে তাঁর৷ ঘটা করে মেহেদি লাগানোর এই আয়োজনটাও সাবিলার মনে নিয়ে আসে ঈদের আনন্দ৷
তারকা হওয়ার পরে ঈদের সকালটা একটু দেরি করেই শুরু হয় সাবিলা নূরের৷ এই সময়ে পরার জন্য আরামদায়ক একটা সালোয়ার-কামিজ বেছে নেন। এবারও তা-ই হবে। কোনো বিশেষ ব্র্যান্ডের নয়, প্রতিবারই ঈদের পোশাকের নকশা সাবিলা নিজেই করে থাকেন৷ কাপড় কেনার কাজটা করে দেন তাঁর মা।
সাবিলার এবারের ঈদপোশাক হবে গাউন ও কামিজের মিশেলে। কালো রং তাঁর পছন্দ৷ পোশাকের রঙে কালোর সঙ্গে আরও আছে সাদার মিশেল৷ জানালেন, দিনের বেলায় খুব একটা না সাজলেও রাতের সাজে থাকবে উৎসবের আমেজ৷ এই সময় চিকন আইলাইনারের রেখা টেনে চোখে আনবেন স্মোকি লুক৷ ঠোঁট রাঙাবেন পার্পল লিপস্টিকে আর এই সাজেই পরিবারের সবার সঙ্গে রাতের বেলায় ঘুরতে বের হবেন সাবিলা নূর৷

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s