পাইরেটেড ‘আয়নাবাজি’ না দেখার অনুরোধ নির্মাতাদের

মোবাইল টেলিকম অপারেটর রবি টিভিতে প্রদর্শনের পর ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে বিপুল ‘আয়নাবাজি’র পাইরেটেড কপি। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের অনলাইন তৎপরতায় পাইরেসি সীমিত করা হলেও সম্ভব হয়নি পুরোপুরি প্রচার বন্ধ করা।  পাইরেটেড ‘আয়নাবাজি’ না দেখার আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন নির্মাতারা।  আজ দুপুরে ফেসবুক লাইভে আসেন নির্মাতা রেদওয়ান রনি। তিনি দর্শকদের অনুরোধ জানান, পাইরেটেড কপি না দেখার জন্য।  বাংলা চলচ্চিত্রকে বাঁচাতে চাইলে হলে গিয়ে ছবি দেখার বিনীত অনুরোধ জানান এই নির্মাতা।

নির্মাতা ওয়াহিদ আনাম লিখেছেন,’আয়নাবাজি এমনই একটা সিনেমা, যেটা আবারও প্রমাণ করে দিলো- So Called Commercial সিনেমা বলতে কিছুই নেই। গল্প আর অভিনয় সুপারহিট, তো সিনেমা সুপারহিট। আয়নাবাজির মত একটা সিনেমা যদি পাইরেসির মুখে পরে, তাহলে সেটা আমাদের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির জন্য ভয়ানক ক্ষতিকর হবে। আপনাদের হাতে যদি পাইরেসি ভার্সন চলেও আসে, তাহলে সেটার প্লে বাটন এ চাপ দেবার আগে নিজের বিবেককে একবার জিজ্ঞেস করে দেখবেন যে আপনিও দেশের এই ক্ষতিটা করতে অংশীদার হতে চান কিনা…?? আশা রাখছি উত্তর অবশ্যই “না” হবে। কারণ সিনেমা তো হল এ বসে দেখবার জায়গা, চোরের মত চুরি করে নয়। যে চুরি করে সে তো অবশ্যই চোর আর যে যেনেশুনে চুরি করা জিনিস ব্যবহার করে সেও কিন্তু এক ই…!

মেজবাহ উদ্দিন সুমন লিখেছেন,’একটা বিশাল প্রজন্মই তৈরি হয়েছে যাদেরকে আপনি ক্রেন দিয়ে টেনেও হলে নিতে পারবেন না…এদেরকে আপনি হলে যতো ভালো ছবিই দেন না কেনো..এরা ডাউনলোড লিংক এর অপেক্ষায় যমের অরুচি হয়ে বসে থাকবে…।’

‘সম্রাট’ ছবির নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ লিখেছেন,’পাইরেসি বন্ধ করতে আমরাই পারি। আমি পাইরেসি মুভি দেখবো না তাহলেই হবে।’

‘এক কাপ চা’ ছবির নির্মাতা নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল লিখেছেন,’আমরা সবাই আসুন পাইরেসির বিরুদ্ধে ঐক্য বদ্ধ হই ।আয়নাবাজি ছবির পাইরেসির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করি ।আমরা সবাই সরকারের কাছে বিনীত অনুরোধ করি পাইরেসির বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যাবস্থা নেওয়ার জন্য ।আর সকল দর্শকে বলবো আপনারা হলে গিয়ে ছবিটা দেখবেন ।অনেক কষ্ট করে একটা ছবি তৈরি করে একজন পরিচালক ,প্রযোজক ।প্লিজ এদের শ্রম মেধা এবং আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করবেন না ।সবাই হলে গিয়ে ছবি দেখি .ভালো ছবি দেখি এবং সবাইকে পাইরেসির বিরুদ্ধে সচেতন করি ।……,জয় হোক বাংলা ছবির .জয় হোক আয়নাবাজির।’

নির্মাতা আশফাক নিপুন লিখেছেন,’আমি আয়নাবাজি দেখেছি দুইবার, কালকে আবার দেখতে যাব শুধু এটা বোঝানোর জন্য যে পাইরেসি করে আমাদের ছবিকে ঠেকাতে পারবে না। মানুষ ঘর থেকে বের হয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে টিকেট কেটে দেখেছে, প্রয়োজন হলে আরো দশবার দাঁড়াবে। কয়েকজন ক্রিমিনাল এর কারণে আমাদের দেশের ছবি মুখ থুবড়ে পড়ে যাবে না।…যারা যারা যেখানেই দেখবেন আয়নাবাজির পাইরেসি হচ্ছে সাথে সাথে নির্মাণ সংশ্লিষ্ট সবাইকে জানিয়ে দিন।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s